বুধবার, ২৬ জুন ২০২৪, ১২:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
বাংলাদেশকে হারিয়ে ইতিহাস গড়লো আফগানিস্তান দিনাজপুরের  ঐতিহাসিক মোগল সম্রাটের পরগনা ঘোড়াঘাটে ঘোড়াশালসহ দুর্গ বিলুপ্তির পথে ২০৫০ সালে একবিংশ শতাব্দীর অর্থেক পথ পাড়ি দেবে বিশ্ব শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক গভীর হবে বলে আশাবাদী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে শেখ হাসিনার আমন্ত্রণ নরেন্দ্র মোদিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিয়োগ প্রদান রাষ্ট্রপতির, আগামীকাল সন্ধ্যায় শপথ গ্রহণ শ্রীলংকাকে হারিয়ে বিশ্বকাপ শুরু বাংলাদেশের মোদির শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে নয়াদিল্লী গেলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইরানের অন্তবর্তী প্রেসিডেন্ট হচ্ছেন মোহাম্মদ মোখবের রাইসি নিহত: ইরানী সংবাদ মাধ্যমের ঘোষণা

দেশে ফিরেই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন তিশা

Reporter Name / ২৫৩ Time View
Update : সোমবার, ১৬ অক্টোবর, ২০২৩

কয়েকদিন আগে বুসান চলচ্চিত্র উৎসবে যোগ দিতে দক্ষিণ কোরিয়া যান নুসরাত ইমরোজ তিশা। সেখানে স্বামী মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর চলচ্চিত্র ‘সামথিং লাইক অ্যান অটোবায়োগ্রাফি’ প্রদর্শিত হয়েছে। সেকারণেই উৎসবে যোগ দেন অভিনেত্রী।

এরইমধ্যে দেশে মুক্তি পেয়েছে ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’। এতে তিশা অভিনয় করেছেন বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের (রেনু) ভূমিকায়। তাই মনটা দেশেও পড়েছিল। তাই তো ফিরেই সামাজিক মাধ্যমে জানালেন অনুভূতি, প্রকাশ করলেন কৃতজ্ঞতা।

নিজের ফেসবুকে তিশা লিখেছেন, ‘মাত্র দেশে এলাম! ফোন অন করে সবার এত এত ম্যাসেজ দেখে মন ভরে গেল। আমার অভিনয় যদি আপনাদের এতটুকুও ইমোশনাল করে থাকে তাহলে আমি কৃতজ্ঞ। ছবিটা করার সময় অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে সবাইকে! আমরা এই পরিশ্রমটা করি আপনাদের কাছ থেকে এই প্রতিক্রিয়া পাওয়ার জন্য!’

সবশেষে ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ হলে গিয়ে দেখার আহ্বান জানিয়ে তিশা লিখেছেন, ‘‘শ্যাম বেনেগাল পরিচালিত সিনেমা ‘মুজিব’ চলছে আপনার কাছের হলে! সবাইকে দেখার আমন্ত্রণ! লাভ ইউ অল!’’

‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’-এ নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছেন আরিফিন শুভ। ছবিটি নির্মাণ করেছেন বলিউডের বায়োপিক মাস্টার খ্যাত শ্যাম বেনেগাল। বাংলাদেশ ও ভারত সরকারের যৌথ প্রযোজনায় বিশাল বাজেটে নির্মিত হয়েছে ছবিটি।

শুভ-তিশা ছাড়াও চলচ্চিত্রটিতে অভিনয় করেছেন নুসরাত ফারিয়া, রিয়াজ আহমেদ, জায়েদ খান, দিলারা জামান, চঞ্চল চৌধুরী, খায়রুল আলম সবুজ, ফেরদৌস আহমেদ, দীঘি, রাইসুল ইসলাম আসাদ, গাজী রাকায়েত, তৌকীর আহমেদসহ দেশের শতাধিক শিল্পী।

২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে মুম্বাইয়ের দাদাসাহেব ফিল্ম সিটিসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় ‘মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ সিনেমার ৮০ ভাগ দৃশ্যধারণ করা হয়েছে। এরপর ২০২১ সালের নভেম্বরে বাংলাদেশ অংশের শ্যুটিং সম্পন্ন হয়। মূলত, সিনেমাটির শেষ কয়েকটি দৃশ্যের চিত্রায়ণ হয় এখানে। তেজগাঁওয়ের পুরনো বিমানবন্দরসহ ঢাকার বেশকিছু এলাকায় এবং গোপালগঞ্জে চলচ্চিত্রটির দৃশ্যধারণ করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর