মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৭:২২ পূর্বাহ্ন

মহম্মদপুরে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ ও ফেরী ঘাট এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মানুষের ঢল

Reporter Name / ১৮২ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২৩

মোঃ আলী রেজা নান্নু মহম্মদপুর মাগুরাপ্রতিনিধি মাগুরার মহম্মদপুরে শত বছরের ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ মেলায় মানুষের ঢল। উপজেলার পলশবাড়ীয়া ইউনিয়নের ঝামা বাজার সংলগ্ন মধুমতি নদীতে নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা ও মেলা বসে। গত বুধবার দুপুর থেকে মধুমতির দুই পাড়ে মানুষের ঢল নামে। সময়ের সঙ্গে মানুষের হইহুল্লা বাড়তে থাকে। প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে হাজার হাজার নারী-পুরুষ দর্শক করতালি আর চিৎকারে মুখরিত করে তোলে নদীর দুপ্রান্ত। গ্রাম বাংলার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা। নদীর দু পাড়ে দোকানপাট ও হরেক রকম পণ্যের পসরা বসেছিল। এনৌকা বাইচ মেলা উপলক্ষে পথে সাজানো হয়েছিল অসংখ্য তোরণ। দুপুর গড়িয়ে আসলে পার্শ্ববর্তী নড়াইল, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জ ,রাজবাড়ী, থেকে দর্শক উপস্থিত হন। ঢাকা-চট্টগ্রাম সহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে মেলা দেখতে অনেকেই বাড়িতে চলে আসেন। দুপুরের পর থেকে মূল আকর্ষণ নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা শুরু হয়। এবং দাঁড়িয়াদের দাঁড় নিক্ষেপ ও কাঁসার ঘন্টার টং টং শব্দ নৌকা বাইচ এলাকায় এক আনন্দময় পরিবেশের সৃষ্টি হয়। প্রতি বছর দুর্গাপূজা শেষ হলে দশমীর পরের দিন নৌকা বাইচ ও ঝামা নদীর তীরে ধারাবাহিক ভাবে গ্রামীণ মেলা বসে। ঝামা, চরঝামা, দেউলী, দিগমাঝি, হরে কৃষ্ণপুর, নারিকেল বাড়ীয়া, ভবানীপুর, যশোবন্তপুর, রামপুর, জোকা, বলরামপুর, পলাশবাড়ীয়া, পার্শ্ববর্তী পাচুড়িয়া সহ অনেক গ্রামের মানুষ মেলায় অংশগ্রহণ ও আনন্দ উল্লাস করেন। বিভিন্ন খেলনা সামগ্রী,মিষ্টি, মাচ, মাংসের দোকান বসে। নাগোর দোলা নৌকা সহ বিভিন্ন ধরনের বিনোদন সামগ্রী মেলায় স্থান পায়। এদিকে ওই দিন বিকালে ঝামা বাজার ফেরী ঘাটের আনুষ্ঠানিক শুভ উদ্বোধন করা হয়। ফেরী ঘাটের (জেড-৭৫০৬) এর চেইনেজ ৫৪+২৫০ মিঃ এ অবস্থিত। লোহাগড়া- নহাটা- কালিশংকরপুর- মহম্মদপুর এবং জেলা মহাসড়ক বাস্তবায়নে সড়ক বিভাগ, মাগুরা।

এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফেরী ঘাটের শুভ উদ্বোধন করেন মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য, ড. শ্রী বীরেন শিকদার। এছাড়া প্রধান অতিথি নৌকা বাইচ পরিদর্শন করেন সন্ধ্যায় ঝামা বাজারে অবস্থিত আবুল খায়ের সুপার মার্কেটে এক আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার পলাশ মন্ডল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডঃ আব্দুল মান্নান, মেলা কমিটির সভাপতি উপজেলা পরিষদের মহিলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মোছাঃ বেবী নাজনীন এর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিনোদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শিকদার মিজান প্রমূখ। ফেরীঘাট উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মোহাঃ শামীমুল হক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (চঃদাঃ) সওজ ফেরী প্ল্যানিং সার্কেল তেজগাঁও ঢাকা, মোহাম্মদ আলী আহম্মেদ খাঁন নির্বাহী প্রকৌশলী সওজ ফেরী নির্মাণ বিভাগ, ঢাকা, মির্জা নুরুল কবীর উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী সওজ (চঃ দাঃ) ফেরী উপ-বিভাগ, ফরিদপুর। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মহম্মদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ পরিদর্শক বোরহান উল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ বিপ্লব রেজা বিকো,বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বৃন্দ, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মোঃ সুজন সিকদার সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাজ্জাদুল ইসলাম সাগর সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সাবেক চেয়ারম্যান এম রেজাউ করিম চু্ন্নু। এ বিষয়ে মেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান জানান,, নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতায় ৬ টি নৌকা অংশগ্রহণ করে। প্রথম স্থান অধিকার করেছেন উপজেলার হরেকৃষ্ণপুর গ্রামের আতর আলী, দ্বিতীয় হয়েছেন লোহাগড়ার এগার নলিগ্রামের কামরুল ইসলাম, তৃতীয় হয়েছেন তেলিপুকুর গ্রামের আতিকুর রহমান। সব শেষে বিজয়ী দের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অথিতি বৃন্দ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর